An Education Blog

word direction logo

ক্যানসার প্রতিরোধ করবে যে ছয় অভ্যাস

utrasজানেন কি, বেশির ভাগ ক্যানসার হয় অস্বাস্থ্যকর জীবনযাপনের কারণে? ধূমপান, অস্বাস্থ্যকর খাদ্যাভ্যাস, সংক্রমণ, অতিবেগুনি রশ্মিতে বেশি আসা ইত্যাদি ক্যানসারের কারণ। তবে কিছু বিষয় মেনে চললে ক্যানসার অনেকটাই প্রতিরোধ করা যায়।

স্বাস্থ্যবিষয়ক ওয়েবসাইট টপ টেন হোম রেমেডি জানিয়েছে ক্যানসার প্রতিরোধে কিছু বিষয়ের কথা।

১. ধূমপানকে ‘না’

সিগারেট ক্যানসার তৈরি করার অন্যতম কারণ। ফুসফুস, গলা, কণ্ঠনালির ক্যানসার তৈরি করতে পারে ধূমপান। তাই ক্যানসারের হাত থেকে রক্ষা পেতে ধূমপান ত্যাগ করুন।

২. মদ্যপান এড়িয়ে চলা

মদ্যপানও বিভিন্ন ক্যানসার তৈরি করে। তাই ক্যানসার প্রতিরোধে মদ্যপান এড়িয়ে চলুন।

৩. ব্যায়াম করা

শারীরিকভাবে কর্মক্ষম থাকা বা নিয়মিত ব্যায়াম করা ক্যানসার প্রতিরোধে সহায়ক। ব্যায়াম করা রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে সাহায্য করে।

৪. ওজন ঠিক রাখা

বাড়তি ওজন ক্যানসার তৈরি করে। বাড়তি ওজন শরীরে দীর্ঘমেয়াদি প্রদাহ তৈরি করে। এতে পরবর্তী সময়ে ক্যানসার হয়। তাই ক্যানসার প্রতিরোধে ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখা জরুরি।

৫. সূর্যরশ্মি থেকে সুরক্ষা

সূর্যের অতিবেগুনি রশ্মি ত্বকের ক্ষতি করে। এতে ত্বকের ক্যানসার হয়। তাই সূর্যের অতিবেগুনি রশ্মি থেকে রক্ষা পেতে সানস্ক্রিন ব্যবহার করুন।

৬. নিয়মিত স্ক্রিনিং

ক্যানসার প্রতিরোধে নিয়মিত স্ক্রিনিং জরুরি। ৪০ বছরের পর থেকে স্তন ক্যানসার প্রতিরোধে বছরে একবার অন্তত ম্যামোগ্রাম করুন। ৪৫ বছরের পর থেকে কোলন ক্যানসারের জন্য স্ক্রিনিং করুন। অন্যান্য ক্যানসারের জন্য নিয়মিত স্ক্রিনিং করুন। স্ক্রিনিং করে ক্যানসার ধরা পড়লেও চিকিৎসা করতে সহজ হয়।

Source: http://goo.gl/hjXQ6w

Leave a Reply